চুলকানি ও চর্মরোগ সমস্যা চিরদিনের জন্য বিদায় করুন সবচেয়ে সহজ পদ্বতিতে (ভিডিওসহ)

চুলকানি ও চর্মরোগ সমস্যা চিরদিনের জন্য বিদায় করুন সবচেয়ে সহজ পদ্বতিতে

বরখাস্ত হচ্ছেন রিয়াল মাদ্রিদ কোচ জিদান!

বাজে মৌসুম কাটাচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদ। সবশেষ ম্যাচে অ্যাথলেটিকো বিলবাওয়ের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছে দলটি। এতে লা লিগার পয়েন্ট টেবিলে চতুর্থ স্থানে নেমে গেছে লস ব্লাঙ্কোজরা। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার চেয়ে পিছিয়ে পড়েছে আট পয়েন্ট।

এমন দুর্দশায় কোচ জিনেদিন জিদানের ওপর আস্থা হারিয়ে ফেলেছে রিয়াল কর্তৃপক্ষ। এতটাই আস্থা হারিয়েছে যে, তাকে বরখাস্ত করতে যাচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ডন ব্যালন জানাচ্ছে, জিদানের ওপর একদমই আস্থা হারিয়ে ফেলেছে রিয়াল। তার অধীনে দলের পারফরম্যান্সে যারপরনায় বিরক্ত ক্লাবটি। তাকে আর বার্নাব্যু’তে রাখতে চাচ্ছে না কর্তৃপক্ষ। মেয়াদ পূরণের আগেই ফরাসি ফুটবল কিংবদন্তিকে দলের কোচের পদ থেকে সরিয়ে দিতে চাচ্ছে।

এরই মধ্যে জিদানের বিকল্পও দেখে রেখেছে রিয়াল। সাবেক কোচ কার্লো আনচেলত্তিকে ফের ফিরিয়ে আনতে চাচ্ছে বিশ্বের অন্যতম ধনী ক্লাবটি।

গেলো সেপ্টেম্বরে বায়ার্ন মিউনিখ ছেড়ে দিয়েছেন আনচেলত্তি। বর্তমানে অবসর সময় কাটাচ্ছেন। এ বিষয়টিও জিদানের বরখাস্তের সম্ভাবনাকে জোরালো করেছে।

সংবাদমাধ্যমটির দাবি, রিয়ালের ড্রেসিং রুমে জিদানের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন এই ইতালিয়ান জাঁদরেল কোচ।

২০১৩/১৪ মৌসুমে রিয়ালের কোচ ছিলেন আনচেলত্তি। ওই সময় লস ব্লাঙ্কোজদের চ্যাম্পিয়নস লিগসহ একাধিক শিরোপা জিতিয়েছিলেন তিনি। তার অধীনে খেলা বেশিরভাগ সদস্য এখনো দলের হয়ে খেলে যাচ্ছেন। জোর গুঞ্জন, তারাও তার শিষ্যত্ব পেতে ফের ইচ্ছা পোষণ করেছেন।

অবশ্য রিয়াল থেকে আনচেলত্তির বিদায়টা সুখকর ছিল না। দলের ভরাডুবির কারণে তাকে বরখাস্ত করে কর্তৃপক্ষ। ২০১৬ সালে তার স্থলাভিষিক্ত হন জিদান। দায়িত্ব পাওয়ার পরই দলের রূপ পাল্টে দেন তিনি। ভাঙাচোরা দলকে সংগঠিত করে ফর্মে ফেরান। দুটি চ্যাম্পিয়নসসহ লা লিগার শিরোপা জেতান। তার ফলও হাতেনাতে পেয়েছেন। জিতেছেন ফিফা বর্ষসেরা কোচের পুরস্কার। অথচ তার অধীনেই হঠাৎ জিততে ভুলে গেছে দোর্দণ্ড প্রতাপশালী দলটি।

Leave a Reply