‘নোয়াখাইল্লা’ ভাষায় বিয়ের কার্ড, হইচই ফেসবুকে- পড়লে হাঁসতে হাঁসতে….

বিয়ের কার্ডের নতুনত্ব নিয়ে যুগে যুগে রাতের ঘুম হারাম করেছেন বর-কনে। আর আধুনিক যুগে এসেতো কার বিয়ের কার্ড কেমন হবে সেটা নিয়ে চলে এক ধরণের প্রতিযোগিতা। মিউজিক, জরি, চুমকিসহ বিয়ের কার্ডের নান্দনিকতার শেষ নেই। তবে সাধারণ কিন্তু ব্যতিক্রমী এক বিয়ের কার্ড নিয়ে আলোচনায় নোয়াখালীর ইয়াছিন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নোয়াখালীর আঞ্চলিক ভাষায় লেখা বিয়ের কার্ডটি নিয়ে আলোচনার শেষ নেই। কার্ডটির শিরোনামে লেখা হয়েছে ‘যার লগে যার বিয়া’। যার অর্থ হলো যার সঙ্গে যার বিয়ে।

কার্ডটিতে দাওয়াতের জন্য লেখা হয়েছে ‘বেঁকে আঁর সালাম নিয়েন, যে দিন আঁর বিয়া হেই দিন আমনেরা বেঁকে আঁর লগে আঁর হোর বাড়ীত যাইবেন, হিয়ার হরের দিন আঁঙ্গো বাড়ীত আইবেন আর আঁঙ্গো বেকের লাই দোয়া করইবেন। ইতি আমনেগো বেকের আদরের ইয়াছিন (নোয়াখাইল্যা)’

যার অর্থ: সবাই আমার সালাম নিবেন, যেদিন আমাদের বিয়ে সেদিন আপনারা সবাই আমার সঙ্গে শ্বশুর বাড়িতে যাবেন। বিয়ের পরের দিন আমাদের বাড়িতে আসবেন। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন। ইতি আপনাদের স্নেহের ইয়াছিন।

ব্যতিক্রমী এই চিঠির বিষয়ে চিঠিতে উল্লেখিত পাত্র ইয়াছিনের সঙ্গে কথা হয় টুয়েন্টিফোর লাইভ নিউজপেপারের। তিনি বলেন, ‘আসলে আমি চেয়েছিলাম আমার বিয়ের কার্ডটা একটু অন্যরকম হোক। বিয়ের মতো গুরুত্বর্পূর্ণ মুহূর্তটিকে স্বরণীয় করতেই এমন পরিকল্পনা করেছি। ‘

ইয়াছিন আরো বলেন, ‘অনেকে বিষয়টা হাস্যকরভাবেই নিচ্ছেন তবে আলোচনা হচ্ছে চারদিকে। এটাই আমি চেয়েছি। যে ভাষায় আমরা কথা বলি সে ভাষায় নিমন্ত্রণ পত্র লেখায় আমি দোষের কিছু দেখি না। ‘

জানা গেছে, বর ও কনে নিজেদের পছন্দের পর পারিবারিক সিদ্ধান্তেই বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন। ইয়াছিন পেশায় একজন ব্যবসায়ী। কথোপকথনের সময় ইয়াছিন তার নতুন জীবনের সফলতা কামনা করে সকলের কাছে দোয়া চান।

Leave a Reply