মসজিদ নয়, সেই পাঁচ একর জমিতে স্কুল চান সালমানের বাবা !!

0
80

ভারতের বাবরি মসজিদের বিরোধপূর্ণ এলাকা নিয়ে মামলার ঐতিহাসিক রায় ঘোষণা করেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। গতকাল শনিবার ভারতের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বে পাঁচ বিচারপতির একটি বেঞ্চ এই রায় ঘোষণা করেছে। ওই রায়ে বলা হয়েছে, বিরোধপূর্ণ জমি একটি ট্রাস্টের অধীনে হিন্দুদের মালিকানায় থাকবে। অন্যত্র সমপরিমাণ ৫ একর জমি মুসলিমদের দেওয়া হবে।

এদিকে ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মুসলিমদের জন্য মসজিদ তৈরি করতে অযোধ্যায় বিকল্প পাঁচ একর জমির ব্যবস্থা করতে নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। কিন্তু ওই জমিতে মসজিদের নির্মাণ চান না বলিউড তারকা সালমান খানের বাবা তথা প্রখ্যাত চিত্রনাট্যকার সেলিম খান। তাঁর মতে, মসজিদের প্রয়োজন নেই মুসলিমদের। তার বদলে ওই জমিতে স্কুল অথবা কলেজ তৈরি হলে অনেক সমস্যা মিটবে।

অযোধ্যা মামলায় সুপ্রিম কোর্টের রায়ে নিয়ে ইতিমধ্যেই নিজেদের মতামত জানিয়েছেন মায়ানগরীর তারকারা। তাতে নয়া সংযোজন সেলিম খান। শনিবার সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘ইসলামে ভালবাসা এবং ক্ষমার কথা বলা হয়েছে। এত দিনে অযোধ্যা বিতর্কে ইতি পড়ল । এ বার ওই দুই নীতি মেনেই চলতে হবে। অতীত আঁকড়ে পড়ে থেকে লাভ নেই। বরং পুরনো সব কিছু ভুলে এগিয়ে যেতে হবে।’

মসজিদের বাইরে ভারতীয় মুসলিমদের আরও অনেক সমস্যা রয়েছে, সেগুলি নিয়ে এবার ভাবতে হবে বলেও মনে করেন সেলিম খান। তাঁর কথায়, ‘অযোধ্যা বিতর্ক নিয়ে আর কোনও আলোচনারই দরকার নেই। তার চেয়ে দৈনন্দিন জীবনের সমস্যাগুলির সমাধানের চেষ্টা করা উচিত। আমাদের ভাল স্কুল ও হাসপাতালের প্রয়োজন। ওই পাঁচ একর জমিতে কলেজের নির্মাণ হোক। কারণ আমাদের মসজিদের প্রয়োজন নেই। নমাজ তো যেখানে খুশি পড়া যায়। ট্রেনে, বিমানে, মাটিতে, যে কোনও জায়গায় নমাজ পড়তে পারি আমরা। বরং ভাল স্কুলের প্রয়োজন আমাদের। দেশের ২২ কোটি মুসলামনের ভাল শিক্ষার প্রয়োজন। তাহলেই অনেক সমস্যা দূর হবে।’

এদিকে মন্দির-মসজিদ বিতর্ক আঁকড়ে পড়ে না থেকে, ভবিষ্যতের কথা ভেবেই শান্তিপূর্ণ পরিবেশ কায়েম রাখতে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে বলেও জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here