গত ৩ জানুয়ারি ভোরে বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মা’র্কিন বিমান বাহিনী একপাক্ষিক হা’মলা চালিয়ে ই’রানের বিপ্লবী গার্ডের অভিজাত শাখা কুদস্ বাহিনীর প্রধান মেজর জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার পর মধ্যপ্রাচ্যে নতুন করে অস্থিরতা দেখা দিয়েছে।

এমতাবস্তায়, মার্কিন এনবিসি টিভি চ্যানেল জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প গত জুনে অর্থাৎ প্রায় সাত মাস আগে জেনারেল সোলাইমানিকে হত্যার নির্দেশে দিয়েছিলেন।

এতে আরো বলা হয়েছে, অবৈধভাবে ইরানের আকশসীমায় প্রবেশের দায়ে ইরানের নিরাপত্তা বাহিনী পারস্য উপসাগরে মার্কিন অত্যাধুনিক গ্লোবাল হক ড্রোন ভূপাতিত করার পর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছিলেন, ইরান কিংবা দেশটির অনুগত সশস্ত্র কোনো গ্রুপ যদি মার্কিন সামরিক কিংবা বেসামরিক কোনো ব্যক্তিকে হত্যা করে তাহলে ইরানের জেনারেল সোলাইমানিকে যেন হত্যা করা হয়।

এদিকে, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেছেন, সোলাইমানিকে হত্যার মাধ্যমে আমেরিকার একজন শত্রুকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here