Warning: Trying to access array offset on value of type bool in /home/bn.ekusherbangladesh.com.bd/public_html/wp-content/plugins/one-user-avatar/includes/class-wp-user-avatar-functions.php on line 798

Warning: Trying to access array offset on value of type bool in /home/bn.ekusherbangladesh.com.bd/public_html/wp-content/plugins/one-user-avatar/includes/class-wp-user-avatar-functions.php on line 798
Exclusive News

সকালে দাফন, রাতে দেখা গেলো কবরের উপর কিশোরীর লাশ!


Warning: Trying to access array offset on value of type bool in /home/bn.ekusherbangladesh.com.bd/public_html/wp-content/plugins/one-user-avatar/includes/class-wp-user-avatar-functions.php on line 798

Warning: Trying to access array offset on value of type bool in /home/bn.ekusherbangladesh.com.bd/public_html/wp-content/plugins/one-user-avatar/includes/class-wp-user-avatar-functions.php on line 798

তানজিমা পারভীন (১৩) নামে এক কিশোরী ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে সাতক্ষীরার শ্যামনগরে বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) সকালে মারা যায়। সেদিন রাত ১১ টায় তাকে দাফন করা হয়। শুক্রবার (২ ৭ আগস্ট) সকালে পরিবারের সদস্যরা তানজিমার লাশ কবর থেকে তুলে রাতের অন্ধকারে সেখানে ফেলে থাকতে দেখে।

ঘটনাটি ঘটেছে শ্যামনগর উপজেলার কাইখালী ইউনিয়নের নিডায়া গ্রামে।

মৃত কিশোরের পরিবারের সদস্যরা জানান, ক্যান্সারে আক্রান্ত তানজিমা বৃহস্পতিবার সকালে মারা যান। পরে তাকে বাড়ির পাশে দাফন করা হয়। কিন্তু রাতে কে বা কি কবর থেকে তার মৃতদেহটি তুলে ফেলে রেখে যায়। শুক্রবার (২৭ আগস্ট) দুপুর ১২ টার দিকে বিজিবি সদস্যদের উপস্থিতিতে লাশ পুনরায় দাফন করা হয়।

শ্যামনগর পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) খবির বলেন, কে বা কারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে তা জানা যায়নি। ঘটনার তদন্ত চলছে।


Warning: Trying to access array offset on value of type bool in /home/bn.ekusherbangladesh.com.bd/public_html/wp-content/plugins/one-user-avatar/includes/class-wp-user-avatar-functions.php on line 798

Warning: Trying to access array offset on value of type bool in /home/bn.ekusherbangladesh.com.bd/public_html/wp-content/plugins/one-user-avatar/includes/class-wp-user-avatar-functions.php on line 798

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button